Wednesday, ফেব্রুয়ারী ২৮, ২০২৪

একনজরে বিশ্বের ২০২১ সালের শক্তিশালী পাসপোর্ট সমূহের তালিকা

পর্তুগাল বিশ্বের ৬ষ্ঠ শক্তিশালী পাসপোর্ট।

ইউরোপ বাংলা ডেস্ক : বিশ্বের শক্তিশালী পাসপোর্টের তালিকায় ২০২১ সালেও শীর্ষ অবস্থান ধরে রেখেছে জাপান। এশিয়ার এই দেশটির পাসপোর্ট হাতে থাকলে ১৯১টি দেশে বিনা ভিসা অথবা অন অ্যারাইভাল ভিসায় ভ্রমণ করা যাবে। টানা চতুর্থবারের মতো বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী পাসপোর্টের সুনাম ধরে রেখেছে জাপান।

আর সেই তালিকায় সবার নিচে অবস্থান করছে আরেক এশিয়ার দেশ আফগানিস্তান। র‌্যাঙ্কিংয়ে যুদ্ধবিদ্ধস্ত দেশটির অবস্থান ১১০তম। আফগানিস্তানের পাসপোর্ট দিয়ে মোট ২৬টি দেশে বিনা ভিসা অথবা অন অ্যারাইভাল ভিসায় ভ্রমণ করা যাবে।

তবে কোনো সুখবর নেই বাংলাদেশের জন্য। এবারের তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান গত বছরের তুলনায় আরো তিন ধাপ পিছিয়ে হয়েছে ১০১তম। বাংলাদেশের পাশাপাশি ১০১তম অবস্থানে রয়েছে ইরানও। বাংলাদেশের পাসপোর্ট হাতে থাকলে বিনা ভিসায়/ অন অ্যারাইভাল ভিসায় ভ্রমণ করা যাবে ৪১টি দেশে।
গতবারের মতো এবারও দ্বিতীয় অবস্থান ধরে রেখেছে সিঙ্গাপুর। এবারের তালিকায় জার্মানির সঙ্গে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া।

সময়ের স্রোতে বিশ্ব মানচিত্রের বুকে জেগে উঠেছে বড় বড় সীমারেখা। আর সেসব সীমারেখার বাহুডোরে বন্দী হয়েছে একেকটি ভূখন্ড।

বর্তমানে সারাবিশ্বে রয়েছে ১৯৫টি স্বীকৃত রাষ্ট্র। দেশ থেকে দেশান্তরে ঘুরতে থাকা মানুষের মাঝে প্রয়োজন হয় সুনির্দিষ্ট পরিচয়পত্র। কোনো ব্যক্তিকে শনাক্ত করার পাশাপাশি তার সম্পর্কে গুরুত্বপূর্ণ নানা তথ্য পেতে প্রধান ভূমিকা পালন করে সেই পরিচয়পত্র। আর বিশ্বের দুয়ারে সমাদৃত ও সবচেয়ে গ্রহণযোগ্য পরিচয়পত্রটির নামই পাসপোর্ট!

https://images.khaleejtimes.com/storyimage/KT/20170411/ARTICLE/170419850/AR/0/AR-170419850.jpg&MaxW=780&imageVersion=16by9&NCS_modified=&exif=.jpg

ছবিঃ বাংলাদেশী পাসপোর্ট

বহুকাল ধরে আমেরিকা, ব্রিটেনসহ ইউরোপীয় বিভিন্ন রাষ্ট্রের পাসপোর্টগুলো আলাদা মর্যাদা পেয়ে এসেছে। যার পেছনের মূল কারণটি হলো, শক্তিশালী কূটনৈতিক সম্পর্কের কারণে এসব দেশের পাসপোর্ট ব্যবহার করে সহজেই বহু দেশে প্রবেশাধিকার বা অবস্থান করার অনুমতি পাওয়া যেত।

সম্প্রতি ইন্টারন্যাশনাল এয়ার ট্রান্সপোর্ট অ্যাসোসিয়েশন ও দ্য হেনলি পাসপোর্ট ইনডেক্স প্রকাশিত বাৎসরিক সমীক্ষাগুলোতে উঠে এসেছে বর্তমান সময়ের সবচেয়ে শক্তিশালী ও মর্যাাদাপূর্ণ পাসপোর্টগুলোর তালিকা।

চলুন দেখি বিশ্বের শক্তিশালী পাসপোর্ট সমূহের তালিকাঃ

১# জাপান 

সম্প্রতি প্রকাশিত এই তালিকায় বিশ্বের শক্তিশালী পাসপোর্টের তালিকায় রয়েছে প্রথম পজিশনে জাপান। জাপানের নাগরিকেরা ১৯১ দেশের ভিসা ফ্রি এক্সেস এর সুবিধা পাচ্ছে জাপানের নাগরিকেরা।

২# সিঙ্গাপুর 

২য় পজিশন দখন করেছে দক্ষিণ এশিয়ার দেশ সিঙ্গাপুর। সিঙ্গাপুরিয়ান বিশ্বের ১৯০ টি দেশ ভিসা ছাড়া ভ্রমণের সুযোগ পাচ্ছেন এই বছর।

৩#দক্ষিন কোরিয়া, জার্মানি 

বিশের ৩য় শক্তিশালী পাসপোর্টের খেতাপ জিতেছে দক্ষিণ কোরিয়া ও জার্মানি যৌথ ভাবে। তারা ১৮৯ টি দেশ ভ্রম করতে পারবেন ভিসা ছাড়া।

৪# ইতালি, ফিনল্যান্ড, স্পেন, লুক্সেমবার্গ 

বিশের ৪ নাম্বার শক্তিশালী পাসপোর্টের খেতাপ অর্জন করেছে যৌথ ভাবে ইতালি, ফিনল্যান্ড, স্পেন, লুক্সেমবার্গ । এই ৪

দেশের নাগরিকেরা বিশ্বের ১৮৮ টি দেশ ভ্রমণ করতে পারবে ভিসা ছাড়া।

৫মঃ ডেনমার্ক, অষ্ট্রিয়াঃ 

পাসপোর্ট ইনডেক্সের ভাষ্য মতে বিশ্বের ৫ম শক্তিশালী পাসপোর্ট এর খেতাব দখল করেছে ডেনমার্ক, অষ্ট্রিয়া

যৌথভাবে। তারা বিশ্বের ১৮৭ টি দেশ ভিসা ছাড়া ভ্রমণের সুযোগ পাবে। তারপর পর্যায়ক্রমে

৬ষ্ঠ স্থানেঃ সুইডেন, ফ্রান্স, পর্তুগাল, নেদারল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড ( ১৮৬টি দেশ ভিসা ফ্রি ট্রাভেল )

৭মঃ সুইজারল্যান্ড, নরওয়ে, যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, বেলজিউম, নিউজিল্যান্ড (১৮5টি দেশ ভিসা ফ্রি ট্রাভেল )

৮মঃ  গ্রিস, মাল্টা, চেক রিপাবলিক, অস্ট্রেলিয়া ( ১৮৪টি দেশ ভিসা ফ্রি ট্রাভেল )

৯মঃ  কানাডা (১৮৩টি দেশ ভিসা ফ্রি ট্রাভেল )

১০মঃ হাঙ্গেরি (১৮১ টি দেশ ভিসা ফ্রি ট্রাভেল )

ইউরোপীয় ইউনিয়নের রাষ্ট্রগুলোর মধ্যে সবার থেকে পেছনে রয়েছে ক্রোয়েশিয়া ও বুলগেরিয়া। দেশ দুটির নাগরিকরা ১৭১টি দেশে ভিসামুক্ত ভ্রমণের সুযোগ পেয়ে থাকেন। এ বছর তালিকায় সবার শেষে ছিল তালেবানের হামলায় বিধ্বস্ত আফগানিস্তান। মাত্র ২৬ দেশে ভিসামুক্ত প্রবেশের সুবিধা পান দেশটির নাগরিকরা। তালিকায় ১০১তম অবস্থানে রয়েছে বাংলাদেশ। ৪১টি দেশে ভিসামুক্ত ভ্রমণের সুবিধা পান বাংলাদেশিরা।  এক নজরে র‌্যাঙ্কিংয়ে সবচেয়ে পিছনে থাকা পাসপোর্ট সমূহের তালিকাঃ

র‌্যাঙ্কিংয়ে তলানিতে আছে যেসব দেশের পাসপোর্টঃ
১০৬. সোমালিয়া ও ইয়েমেন (৩৩)
১০৭. পাকিস্তান (৩২)
১০৮. সিরিয়া (২৯)
১০৯. ইরাক (২৮)

১১০. আফগানিস্তান (২৬)

ইউরোপ বাংলার আরও সংবাদ পড়ুনঃ

 

ইউরোপ বাংলা

ইউরোপ বাংলা

একজন ফ্রিল্যান্স রাইটার, ব্লগার, এডুকেশনাল কনসালট্যান্ট, ক্যারিয়ার কাউন্সিলর, উদ্যোক্তা।

Related Posts

Next Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

I agree to the Terms & Conditions and Privacy Policy.

ফেসবুকে ইউরোপ বাংলা