Wednesday, ফেব্রুয়ারী ২৮, ২০২৪

ইউরোপের সেরা গন্তব্যের প্রথম স্থানে পর্তুগালের ঐতিহাসিক শহর ব্রাগা

ইউরোপ বাংলা ডেস্কঃ ২০২১ সালের ইউরোপের সেরা গন্তব্য হিসেবে  পর্তুগালের ঐতিহাসিক শহর ব্রাগা(Braga) ইউরোপিয়ান বেস্ট ডেস্টিনেশন (ইবিডি) এর তালিকা প্রথম স্থান অর্জন করেছে। ব্রাগাকে পর্তুগালের রোম হিসেবেও উপাধি দেয়া হয় তবে এই শহরের উৎপত্তি রোমান শাসনামলের অনেক পূর্ব থেকেই।

আইবেরিয়ান পেনিনসুলার ইতিহাস এবং স্থাপত্য শিল্পের এক মনমুগ্ধকর শহর ব্রাগা, ইউরোপিয়ান ঐতিহ্যের পুরনো ঐতিহাসিক শহরগুলোর বৈশিষ্ট্য সম্বলিত সরু রাস্তা এবং কারুকার্যখচি ভবনগুলো পর্যটকদের মনে বিস্ময় জাগিয়ে তোলে।

ঝকঝকে পরিচ্ছন্ন ফুল আর সবুজ বনানীতে পরিপূর্ণ একশত তিরাশি দশমিক চল্লিশ বর্গকিলোমিটারের ছোট এই শহরটি  ইউরোপের অন্যতম সুখী শহর হিসেবে পরিচিত । পর্তুগালের মধ্যে এটি অন্যতম একটি রোমান্টিক শহর, গ্রীষ্ম মৌসুমে প্রতিদিনই এমন কিছু আয়োজন থাকে যা যুগলদের ভ্রমণকে স্মৃতিময় করে তুলে। এছাড়া ভোজনরসিকদের জন্য ছোট ছোট রেস্তোরা গুলো ঐতিহ্যবাহী পর্তুগিজ রসনা বিলাসের অপূর্ব স্বাদ এনে দেয় ।

দ্বাদশ শতাব্দীতে তৈরি ব্রাগা ক্যাথেড্রাল পর্তুগালের সবচেয়ে পুরনো এবং প্রতি বছর সপ্তাহব্যাপী খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের ধর্মীয় উৎসব উদযাপিত হয় তাছাড়া রোমান সভ্যতার স্মৃতি সম্বলিত ও পর্তুগিজ ঐতিহ্যের নিদর্শনের পুরনো ভবন, প্যালেস,  থিয়েটার, মিউজিয়াম ভ্রমণকারী আনন্দ উপভোগ করার পাশাপাশি ইতিহাস এবং গৌরবের শিক্ষা গ্রহণ করতে পারে।অষ্টাদশ শতাব্দীতে মুসলমানদের বিজয় এবং  শেষ দিকে ক্যাথলিক খ্রিস্টানদের পুনর্দখল এক অনন্য নিদর্শন বহন করছে শহরটি।

বর্তমান করোনা মহামারীর  কাটিয়ে উঠে পর্যটন চালু করার কথা যখন ভাবছে পর্তুগাল সরকার তখন এই খবরটি নিঃসন্দেহে পর্তুগিজ পর্যটন শিল্পের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করছেন এখানকার বসবাসরত পর্যটন খাতে জড়িত প্রবাসী বাংলাদেশিরা এবং পর্যটকর পদচারণায় তাদের জীবন-জীবিকা ফিরে আসবে সেই পুরনো আলো।

ইউরোপিয়ান বেস্ট ডেস্টিনেশন(ইবিডি)  হচ্ছে ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের ব্রাসেলস ভিত্তিক স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠান ইডিইন প্রোগ্রামের আওতায় অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে তৈরি একটি ওয়েবসাইট যারা  ভ্রমণপিপাসুদের তৃষ্ণা মেটাতে এবং ইউরোপের ইতিহাস ঐতিহ্যকে ধরার জন্য বিশ্বের ১৯০ টি দেশের নাগরিকদের ভোটের মাধ্যমে এই তালিকা প্রস্তুত করে। ফলে ভ্রমণকারী ইউরোপ ভ্রমণে ইউরোপের সৌন্দর্য এবং ইতিহাসের একটি অভিজ্ঞতা লাভ করে।

ফরিদ আহমেদ পাটওয়ারি

ফরিদ আহমেদ পাটওয়ারি

আমি প্রবাসী বাংলাদেশী হিসেবে পর্তুগালে বসবাস করছি। এখানে জীবন-জীবিকার পাশাপাশি পর্তুগিজ এবং বাংলাদেশ কমিউনিটিতে বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ডে যুক্ত রয়েছি। পর্তুগালের পথচলা ২০১৫ সালে তবে এর পূর্বে বাংলাদেশে একটি স্বনামধন্য রিয়েল এস্টেট প্রতিষ্ঠান প্রধান নির্বাহী হিসেবে কর্মরত ছিলাম। শিক্ষাজীবন ঢাকা কলেজ থেকে ২০০৪ সালে স্নাতক ডিগ্রি এবং আদমজী ক্যান্টনমেন্ট কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক এবং বলাখাল জে এন হাই স্কুল থেকে মাধ্যমিক । বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অফ ম্যানেজমেন্ট থেকে ব্যবস্থাপনা বিষয়ে পোস্ট গ্রাজুয়েট কোর্স তাছাড়া শিক্ষাজীবন এবং কর্মজীবনে হিউম্যান রিসোর্স ডেভেলপমেন্ট, ব্যবস্থাপনা, আইটি সম্পর্কিত বিভিন্ন স্কিল ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামে যুক্ত ছিলাম। ২২ বছরের কর্মজীবন কেটেছে মিডিয়া, হোটেল ম্যানেজমেন্ট, আইটি,  সেলস এন্ড মার্কেটিং এবং মার্চেন্ডাইজার হিসেবে। ফটোগ্রাফি, লেখালেখি, ভ্রমণ এবং টেকনোলজির প্রতি আগ্রহ রয়েছে শখ ও বলা যায়। এরমধ্যে লেখালেখিটা শক্ত হাতে ধরেছি, সুন্দর একটা পরিবর্তন এর আশায়। জীবনের মূল লক্ষ্য হচ্ছে সুন্দর এবং শান্তিপূর্ণ পৃথিবী গঠনে মানুষের সহযোগিতায় কাজ করে যাওয়া।

Related Posts

Next Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

I agree to the Terms & Conditions and Privacy Policy.

ফেসবুকে ইউরোপ বাংলা