Friday, এপ্রিল ১২, ২০২৪

পর্তুগীজদের হৃদয় জয় করে আবারো প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হলেন মার্সেলো দে সজা

ইউরোপ বাংলা ডেস্কঃ“প্রেসিডেন্ট একজন পর্তুগালের জন্য এবং প্রত্যেকটি পর্তুগিজ নাগরিকের জন্য আপনারা যারা আমাকে ভোট দিয়েছেন আমি তাদেরও প্রেসিডেন্ট আর আপনারা যারা আমাকে ভোট দেননি আমি তাদেরও প্রেসিডেন্ট, আমার হৃদয় খোলা থাকবে সকলের জন্য “এই কথাগুলো বলছিলেন পর্তুগালের দ্বিতীয় মেয়াদে গত ২৪ শে জানুয়ারি পর্তুগালের জনগণের  ভোটে নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট মার্সেলো রেবেলো দে  সজা তার বিজয়ী বক্তব্যে।

গত ২৪ জানুয়ারি পর্তুগালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় এ নির্বাচনে  প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন মোট সাতজন প্রার্থী। বর্তমান প্রেসিডেন্ট মার্সেলো রেবেলো দে  সজা (পিএসডি) আনা গোমেজ (পিএস) আন্ড্রে ভেনতুরা (সেগা) মারিছা মাটিয়াস (বিই) জোয়াও ফেরেইরা (পিসিপি) তিয়াগো মাইয়ান গনসালভেস (আইএল) ও ভিটোরিনু সিলভা (আর আই আর)

বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারে অধিকারী পর্তুগালের বর্তমান প্রেসিডেন্ট পুরো নাম মার্সেলো নুনো ডুয়ার্তে রেবেলো দে সজা (Marcelo Nuno Duarte Rebelo de Sousa)  তার জন্ম ১৯৪৮ সালে পর্তুগালের বর্তমান রাজধানী লিসবনে। তিনি একজন সফল রাজনীতিবিদ, সংবিধান প্রণেতা, অধ্যাপক , সাংবাদিক এবং সফল রাষ্ট্রপতি। তিনি তার ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন একজন আইনজীবী হিসেবে অতঃপর তিনি একজন সাংবাদিক হিসেবে কাজ শুরু করেন এর সাথে সাথেই তিনি পপুলার ডেমোক্রেটিক পার্টির সাথে রাজনীতি শুরু করেন। এবং ১৯৭৬ সালে পর্তুগাল এসেম্বলির ডেপুটি হিসেবে সংবিধান প্রণয়নে সহযোগিতা করেন।

তিনি ১৯৯৬ থেকে ১৯৯৯ সাল পর্যন্ত সোশ্যাল ডেমোক্রেটিক পার্টির (পিএসডি) নেতা হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। তাছাড়া তিনি রাজনৈতিক বিশ্লেষক এবং আইন প্রণেতা হিসেবে বিভিন্ন প্রকার টিভি শো, রাজনৈতিক বিশ্লেষক এবং পর্তুগালের একজন প্রধান সারির জ্ঞানী ব্যক্তিদের মধ্যে অন্যতম হিসেবে বিবেচিত হন।

২০১৬ সালের ২৪ শে জানুয়ারি তিনি প্রথম মেয়াদে পাঁচ বছরের জন্য প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন এবং ২০২১ সালের  ২৪ শে জানুয়ারি একইভাবে প্রথম রাউন্ডে ৬০ দশমিক ৭ শতাংশ ভোটে আগামী পাঁচ বছরের জন্য পর্তুগালের প্রেসিডেন্ট হিসেবে জয়লাভ করেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আনা গোমেজ (পিএস) পেয়েছেন ১২ দশমিক  ৯৭ শতাংশ । এছাড়া ভাষণ এর শুরুতে করণা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েে মৃত্যু বরণকাারী সকলের জন্য দুঃখ প্রকাশ করেন এবং পরিবারের জন্য সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। জনাব মার্সেলো পর্তুগালের একজন জনপ্রিয় রাষ্ট্রপতি হিসেবেে গত 5 বছর দায়িত্ব পালন করেছেন ।

 অন্যান্য সংবাদঃ

ফরিদ আহমেদ পাটওয়ারি

ফরিদ আহমেদ পাটওয়ারি

আমি প্রবাসী বাংলাদেশী হিসেবে পর্তুগালে বসবাস করছি। এখানে জীবন-জীবিকার পাশাপাশি পর্তুগিজ এবং বাংলাদেশ কমিউনিটিতে বিভিন্ন সামাজিক কর্মকান্ডে যুক্ত রয়েছি। পর্তুগালের পথচলা ২০১৫ সালে তবে এর পূর্বে বাংলাদেশে একটি স্বনামধন্য রিয়েল এস্টেট প্রতিষ্ঠান প্রধান নির্বাহী হিসেবে কর্মরত ছিলাম। শিক্ষাজীবন ঢাকা কলেজ থেকে ২০০৪ সালে স্নাতক ডিগ্রি এবং আদমজী ক্যান্টনমেন্ট কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক এবং বলাখাল জে এন হাই স্কুল থেকে মাধ্যমিক । বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অফ ম্যানেজমেন্ট থেকে ব্যবস্থাপনা বিষয়ে পোস্ট গ্রাজুয়েট কোর্স তাছাড়া শিক্ষাজীবন এবং কর্মজীবনে হিউম্যান রিসোর্স ডেভেলপমেন্ট, ব্যবস্থাপনা, আইটি সম্পর্কিত বিভিন্ন স্কিল ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রামে যুক্ত ছিলাম। ২২ বছরের কর্মজীবন কেটেছে মিডিয়া, হোটেল ম্যানেজমেন্ট, আইটি,  সেলস এন্ড মার্কেটিং এবং মার্চেন্ডাইজার হিসেবে। ফটোগ্রাফি, লেখালেখি, ভ্রমণ এবং টেকনোলজির প্রতি আগ্রহ রয়েছে শখ ও বলা যায়। এরমধ্যে লেখালেখিটা শক্ত হাতে ধরেছি, সুন্দর একটা পরিবর্তন এর আশায়। জীবনের মূল লক্ষ্য হচ্ছে সুন্দর এবং শান্তিপূর্ণ পৃথিবী গঠনে মানুষের সহযোগিতায় কাজ করে যাওয়া।

Related Posts

Next Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

I agree to the Terms & Conditions and Privacy Policy.

ফেসবুকে ইউরোপ বাংলা