Wednesday, নভেম্বর ২৯, ২০২৩

ভারতের ভিন্ন রাজ্যের ২৫ হাজার নাগরিকদের দেয়া হলো কাশ্মীরের নাগরিকত্ব

কাশ্মীরে নাগরিকত্ব পেল ২৫ হাজার অ-কাশ্মীরি, স্থানীয়দের ক্ষোভ!

৫ কাশ্মীরি নেতাকে মুক্তি দিল ভারত

 

অনলাইন ডেস্কঃ  ভারত শাসিত কাশ্মীরে প্রায় ২৫ হাজার ভারতীয়কে নাগরিকত্ব সনদ দিয়েছে দেশটির সরকার। এর মধ্য দিয়ে বিজেপি সরকার সেখানকার জনসংখ্যার বিন্যাস পরিবর্তনের চেষ্টা করছে বলে অভিযোগ করেছে কাশ্মীরের রাজনৈতিক দলগুলো। নাগরিকত্ব সনদের মাধ্যমে সেখানে এখন থেকে অ-কাশ্মীরিরা স্থায়ী বসতি গড়তে পারবে এবং সরকারি চাকরির সুযোগ পাবে।

ভারতীয় গণমাধ্যম জানায়, সরকারের এই পদক্ষেপে ক্ষোভে ফেটে পড়েছে কাশ্মীরের দুই প্রধান রাজনৈতিক দল ন্যাশনাল কনফারেন্স ও পিপলস ডেমোক্র্যাটিক পার্টি। দুই দলের অভিযোগ, নতুন এই আইনকে হাতিয়ার করে দেশের একমাত্র মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ রাজ্যের জনসংখ্যার বিন্যাস বদলানোর ছক করছে আরএসএস-এর নীতিতে চলা বিজেপি সরকার।

গত বছরের ৫ আগস্ট মাসে ৩৫এ ধারা বাতিল করে কাশ্মীরের রাজ্য ও স্বায়ত্তশাসনের মর্যাদা কেড়ে নেয় বিজেপি সরকার। বাতিল করা হয় কাশ্মীরের নাগরিকত্ব সুরক্ষা আইনও। এরপর প্রায় ২৫ হাজার অ-কাশ্মীরি স্থায়ী নাগরিকের সনদ পেলেন। এর আগে জম্মু-কাশ্মীরের নিজস্ব সংবিধান ছিল। সেই সংবিধান অনুযায়ী, বাইরের রাজ্যের কেউ ভূস্বর্গের স্থায়ী নাগরিক হতে পারতেন না। জমি, স্থাবর সম্পত্তির মালিকও হতে পারতেন না।

এখন থেকে কিছু শর্ত পূরণ করে ভারতীয়রা কাশ্মীরের নাগরিকত্বের জন্য তহশিলদারের কাছে আবেদন করতে পারবেন। শর্ত পূরণ করলে কাউকে এই সনদ দিতে কোনো কর্মকর্তা অকারণে দেরি করলে তাকে পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা করা হবে।

অন্যান্য খবর –

ইউরোপ বাংলা/ এসএইচ

ইউরোপ বাংলা

ইউরোপ বাংলা

একজন ফ্রিল্যান্স রাইটার, ব্লগার, এডুকেশনাল কনসালট্যান্ট, ক্যারিয়ার কাউন্সিলর, উদ্যোক্তা।

Related Posts

Next Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

I agree to the Terms & Conditions and Privacy Policy.

ফেসবুকে ইউরোপ বাংলা