Wednesday, এপ্রিল ২৪, ২০২৪

উত্তাপ নিয়ে শ্রীলংকার বিপক্ষে মাঠে নামছে বাংলাদেশ

ইউরোপ বাংলা ডেস্ক : শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আজ এশিয়া কাপের বাঁচা-মরার লড়াইয়ে মাঠে নামছে বাংলাদেশ। টাইগাররা আজকের ম্যাচ হারলে শেষ হয়ে যবে এশিয়া কাপের স্বপ্ন। তাই দুবাই আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ-শ্রীলংকার ম্যাচটিকে নির্দ্বিধায় ‘অঘোষিত ফাইনাল’ বলা যায়। বাংলাদেশ সময় আজ রাত ৮টায় দুবাই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শুরু হবে ম্যাচটি। এদিকে আফগানিস্তান ম্যাচের ধকল কাটাতেই বিশ্রামে বেশিরভাগ ক্রিকেটার। তবে টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজনের মতে, যে দল চাপ সামলে নিতে পারবে, শেষ হাসি হাসবে তারাই।

তিনি বলেন, পেস বলে একজন ক্রিকেটার হিট করতে গিয়ে আউট হতেই পারে, এতে সমস্যা নেই; তবে বডি ল্যাংগুয়েজ এমন হলে তো আমাদের কষ্ট লাগে। আমি দলের প্রতিটি ক্রিকেটারের মানসিকতার পরিবর্তন দেখতে চাই। সবার কাছ থেকে বেটার কিছু আশা করছি।

সাম্প্রতিক সময়ে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশের ম্যাচগুলো আলাদা উত্তাপ ছড়ায়। একসময় খেলার মাঠে অগাধ ক্রিকেটীয় বন্ধুত্ব থাকলেও ২০১৮ নিদাহাস ট্রফির ম্যাচে দুই দলের মধ্যে বাকবিতণ্ডার পর থেকে এই ফিক্সচারে বৈরিতার ছোঁয়া লেগেছে।

এবারের এশিয়া কাপেই যেমন বাংলাদেশের বোলিং সক্ষমতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে বিতর্কের জন্ম দিয়েছিলেন লঙ্কান অধিনায়ক দাসুন শানাকা। ‘আফগানিস্তানের চেয়েও বাংলাদেশ সহজ প্রতিপক্ষ’ এবং ‘সাকিব-মুস্তাফিজ ছাড়া বাংলাদেশের কোনো বিশ্বমানের বোলার নেই’-শানাকার এই দুই মন্তব্যে ম্যাচের আগে দুই দলের মধ্যে কথার লড়াই জমে উঠেছে।

বাংলাদেশের স্পিনিং অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান মিরাজ শানাকার বক্তব্যের তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় বলেছিলেন, মাঠেই জবাব দিতে চান তারা। তবে ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ দলের টিম ডিরেক্টর খালেদ মাহমুদ সুজন পাল্টা আক্রমণ করেন, শ্রীলঙ্কায় সাকিব-মুস্তাফিজের মানের কোনো বোলার নেই বলে মত তার। এমনকি শ্রীলঙ্কার বলার মতো কোনো বোলারই নাকি তার চোখে পড়ে না।

পরিসংখ্যানের দৌড়ে অবশ্য শ্রীলঙ্কার চেয়ে বেশ পিছিয়ে আছে বাংলাদেশ। টি-টোয়েন্টি র‍্যাঙ্কিংয়ে ৮ নম্বরে রয়েছে শ্রীলঙ্কা, একধাপ পিছিয়ে বাংলাদেশ আছে নবম স্থানে। ক্রিকেটের ক্ষুদ্রতম ফরম্যাটে এখন পর্যন্ত ১২ বার মুখোমুখি হয়েছে বাংলাদেশ এবং শ্রীলঙ্কা, যার মধ্যে আটবারই জয়ের হাসি হেসেছে লঙ্কানরা, চারবার জয়ের স্বাদ পেয়েছে বাংলাদেশ। আর এশিয়া কাপে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশের সাফল্য নেই বললেই চলে, ১৩ বারের মোকাবিলায় এখন পর্যন্ত ১১ বারই জয় পেয়েছে শ্রীলঙ্কা, স্রেফ দু’বার ম্যাচের ফল এসেছে বাংলাদেশের পক্ষে।

Related Posts

Next Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

I agree to the Terms & Conditions and Privacy Policy.

ফেসবুকে ইউরোপ বাংলা