Tuesday, এপ্রিল ২৩, ২০২৪

ইউক্রেনের বন্দরনগরী খেরসনের মেয়র রাশিয়ার হাতে আটক

ইউরোপ বাংলা ডেস্ক : ইউক্রেনের অন্যতম প্রধান শহর এবং বন্দরনগরী খেরসনের মেয়র ইহোর কোলিখায়েভকে আটক করেছে রাশিয়া। ইউক্রেনীয় এই অঞ্চলটি বর্তমানে রুশ নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। রাশিয়ার নিযুক্ত কর্মকর্তারা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। অন্যদিকে খেরসনের স্থানীয় কর্মকর্তা বলেছেন, মস্কোর আদেশ মানতে অস্বীকার করায় রুশ নিরাপত্তা বাহিনী মঙ্গলবার (২৮ জুন) খেরসন শহরের মেয়রকে অপহরণ করেছে। বুধবার (২৯ জুন) এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে বার্তাসংস্থা রয়টার্স।

কৃষ্ণসাগরের বন্দর শহর খেরসন রাশিয়া-অধিভুক্ত ক্রিমিয়া উপদ্বীপের ঠিক উত্তর-পশ্চিমে অবস্থিত। গত ফেব্রুয়ারিতে শুরু হওয়া ইউক্রেনে সামরিক আগ্রাসনের প্রথম সপ্তাহেই রাশিয়া এটি দখল করে এবং এরপর স্থানীয় জনসংখ্যার একটি বড় অংশ এই অঞ্চল ছেড়ে চলে গেছে। খেরসন অঞ্চলের মস্কো-নিযুক্ত ডেপুটি প্রধান একেতেরিনা গুবারেভা মেসেজিং অ্যাপ টেলিগ্রামে বলেছেন, আমি নিশ্চিত করতে পারি যে, খেরসনের মেয়র ইহোর কোলিখায়েভকে কমান্ড্যান্টের (সামরিক পুলিশ) কার্যালয় থেকে আটক করা হয়েছে।

এদিকে ইহোর কোলিখায়েভের উপদেষ্টা হ্যালিনা লায়াশেভস্কা বলেছেন, ইউক্রেনের রাশিয়ান দখলদারদের সঙ্গে সহযোগিতা করতে অস্বীকার করার পরে মেয়রকে অপহরণ করা হয়েছে। লায়াশেভস্কা তার ফেসবুক পেজে বলেছেন, আজ সকালে খেরসনের মেয়র ইহোর কোলিখায়েভ শহরের ইউটিলিটি সংশ্লিষ্ট একটি কার্যালয়ে গিয়েছিলেন। সেখানে সিটি কাউন্সিলের অবশিষ্ট কর্মচারীরা কাজ করেন।

রাশিয়ার ফেডারেল সিকিউরিটি সার্ভিসের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, গাড়ি থেকে নামার সঙ্গে সঙ্গেই তাকে সশস্ত্র ন্যাশনাল গার্ড এবং সম্ভবত এফএসবি’র মাধ্যমে আটক করা হয়। খেরসন অঞ্চলে মস্কো-নিযুক্ত আরেকজন ডেপুটি কিরিল স্ট্রেমাসভ গত সোমবার রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় বার্তাসংস্থা আরআইএ’কে বলেন, ইউক্রেনকে ‘ডিনাজিফিকেশন প্রক্রিয়া’ বা ‘নাৎসীবাদ মুক্ত’ করার যে কাজ রাশিয়া করছে তার অনেক ক্ষতি করেছেন খেরসনের মেয়র ইহোর কোলিখায়েভ।

অবশ্য ইহোর কোলিখায়েভ অপহরণ বা আটকের খবর রয়টার্স স্বাধীনভাবে যাচাই করতে পারেনি। এছাড়া ইউক্রেনীয় কর্তৃপক্ষের কাছ থেকেও এ বিষয়টি আনুষ্ঠানিকভাবে নিশ্চিত করা হয়নি। এর আগে পুরো খেরসন অঞ্চল দখলে নেওয়ার পর গত এপ্রিল মাসের শেষের দিকে সেখানকার আঞ্চলিক প্রশাসনের এবং একইসঙ্গে সিটি কাউন্সিলের নতুন প্রধান নিয়োগ করে রাশিয়ার সেনাবাহিনী।

একইদিন খেরসনের গভর্নর হেন্নাদি লাহুতা জানান, দখলকারীরা খেরসন সিটি কাউন্সিলের পুরো প্রাঙ্গণ দখল করে নিয়েছে। পরে সেখান থেকে ইউক্রেনের সকল প্রতীক ও চিহ্ন সরিয়ে দেয় এবং নিজস্ব রক্ষীদের নিযুক্ত করে রুশ সেনারা। এরপরই খেরসন অঞ্চলে গত ১ মে থেকে রুশ মুদ্রা রুবলে লেনদেন চালু করে মস্কো। অবশ্য রাশিয়ার মুদ্রার পাশাপাশি ইউক্রেনীয় মুদ্রা রিভনিয়াও আপাতত সেখানে চালু রয়েছে। এছাড়া সমগ্র খেরসন অঞ্চলে রাশিয়ার রেডিও ও টেলিভিশন সম্প্রচার চলছে।

উল্লেখ্য, গত মার্চ মাসের প্রথম সপ্তাহে ইউক্রেনের অন্যতম প্রধান শহর এবং বন্দরনগরী খেরসন দখল করে নেয় রাশিয়া। এছাড়া প্রথম বড় কোনো ইউক্রেনীয় শহর হিসেবে সেসময় খেরসন দখল করেছিল রুশ সেনারা। এর প্রায় দুই মাসের মাথায় এপ্রিলের শেষ সপ্তাহে খেরসনের পুরো অঞ্চলটি দখলে নেয় রাশিয়া।

Related Posts

Next Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

I agree to the Terms & Conditions and Privacy Policy.

ফেসবুকে ইউরোপ বাংলা