Wednesday, ফেব্রুয়ারী ২৮, ২০২৪

খালেদা জিয়াকে দ্রুত বিদেশে নেওয়ার পরামর্শ মেডিকেল বোর্ডের

ইউরোপ বাংলা ডেস্ক : মাইল্ড হার্ট অ্যাটাকসহ নানা জটিল রোগে আক্রান্ত রাজধানীর এভার কেয়ার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা অপরিবর্তিত রয়েছে বলে জানিয়েছেন তার চিকিৎসকরা। তার শারীরিক অবস্থা পর্যালোচনা করে যত দ্রুত সম্ভব তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে তার মেডিকেল বোর্ড। সোমবার রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে মেডিকেল বোর্ডের বৈঠকে এ পরামর্শ দেওয়া হয়।

খালেদা জিয়ার ব্যক্তিগত চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেন জানান, খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল নয়। তার প্রেসার ও কিডনিসহ অন্যান্য জটিলতা কমলে হার্টের বাকি দুটি ব্লকের চিকিৎসা শুরু করা হবে।

সোমবার এভারকেয়ার হাসপাতালে মেডিক্যাল বোর্ডের বৈঠক শেষে দুজন চিকিৎসক জানান, খালেদা জিয়ার শারীরিক সুরক্ষায় আরো কিছু ব্যবস্থা নেওয়ার বিষয়ে আলোচনা করেন চিকিৎসকরা। এর মধ্যে আগামী এক সপ্তাহ খালেদা জিয়াকে মেডিক্যাল বোর্ডের নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। দেশি-বিদেশি বিশেষজ্ঞ চিকিৎকদের সমন্বয়ে দেড় ঘণ্টাব্যাপী চলে মেডিক্যাল বোর্ডের বৈঠক। এতে লন্ডন ও আমেরিকা থেকে বিদেশি চিকিৎসকরা জুমে যোগ দেন। এ ছাড়া খালেদা জিয়ার পুত্রবধূ ডা. জোবাইদা রহমানও ছিলেন।

এক চিকিৎসক জানান, সোমবার রাতে খালেদা জিয়ার স্বাস্থ্যের আরও কিছু পরীক্ষা করা হয়েছে। এভারকেয়ার ছাড়াও ল্যাবএইড হাসপাতালে পরীক্ষা করা হয়। পরে রেজাল্ট বিদেশি চিকিৎসকদের প্রেরণ করা হয়। বোর্ডের পরামর্শ মোতাবেক ম্যাডামের জন্য বাসা থেকে বাবুর্চি রান্না করে খাবার নিয়ে আসেন হাসপাতালে। আপাতত সুপসহ তরল খাবারই দেওয়া হচ্ছে। প্রয়োজন ছাড়া তেমন কথা বলেন না। শরীর স্বাভাবিকভাবেই ক্লান্ত। সালাম ও কুশলাদি বিনিময় হয় আমাদের সঙ্গে।

এর আগে হঠাৎ অসুস্থ হওয়ায় গত শুক্রবার দিবাগত রাতে খালেদা জিয়াকে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। গত বছরের এপ্রিলে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর এ নিয়ে খালেদা জিয়াকে কয়েক দাফা এভারকেয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হলো।

Related Posts

Next Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

I agree to the Terms & Conditions and Privacy Policy.

ফেসবুকে ইউরোপ বাংলা