Friday, এপ্রিল ১২, ২০২৪

কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন অক্সফোর্ডের এস্ট্রাজেনেকা ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন এর অনুমোদন পেল

৫৫ বছরের বেশি বয়স্কদের প্রয়োগে কিছুটা শঙ্কা থেকেই গেল

ইউরোপ বাংলা ডেস্কঃইউরোপিয়ান ইউনিয়ন তাদের জনগণকে করোনা মহামারী হাত থেকে রক্ষার জন্য ইতিপূর্বে সম্ভাব্য সকল কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানের সাথে চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন,  এরই ধারাবাহিকতায় যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড এর ভ্যাকসিন এর অনুমোদন দিয়েছে ইউরোপিয়ান মেডিসিন এজেন্সি গত ২৯ শে জানুয়ারি। গত ২০২১ সালের আগস্ট মাসে চুক্তি অনুযায়ী এস্ট্রাজেনেকা ২০২১ সালের মধ্যে সর্ব মোট ৪০০ মিলিয়ন ডোজ ভ্যাকসিন  সরবরাহ করবে।

এই এস্ট্রাজেনেকার কভিড-১৯ ভ্যাকসিন  ১৮ বছর বা তার বেশি বয়সের মানুষদেরকে প্রদান করা হবে, এই ভ্যাকসিন শরীরের প্রতিরোধ ব্যবস্থা ভাইরাসের বিরুদ্ধে কাজ করবে । এটি এন্টি বডি  এবং বিশেষায়িত শ্বেত রক্ত কণিকা তৈরি করবে যা কোভিদ-১৯ ভাইরাস থেকে সুরক্ষা দিবে।

ইতিপূর্বে এস্ট্রাজেনেকা কভিড-১৯ ভ্যাকসিন কোম্পানির ভ্যাকসিন নিয়ে কিছুটা জটিলতা দেখা দিয়েছিল যে-  খুব বেশি বয়স্কদের ক্ষেত্রে এটি তেমন কার্যকারিতা পাওয়া যাচ্ছে না। এর কিছু সত্যতা মিলেছে ইউরোপিয়ান মেডিসিন এজেন্সির গবেষণায়।  ইউরোপিয়ান মেডিসিন এজেন্সির  গবেষণা অনুসারে দেখা গেছে এই ভ্যাকসিনটি উৎপাদনে গবেষণার ক্ষেত্রে ১৮ থেকে ৫৫ বছর বয়সী বয়সের মানুষের মধ্যে ছিল। ৫৫ বছরের বেশি বয়সী মানুষের ফলাফল এতে নেই । তবে অন্যান্য ভ্যাকসিন এর সাথে সামঞ্জস্য করে দেখা যায় এই ভ্যাকসিনটি প্রাপ্তবয়স্কদের ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যাবে বলে ইউরোপিয়ান মেডিসিন অথরিটির বৈজ্ঞানিক বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন।

এ পর্যন্ত ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের  চিকিতৎসা ক্ষেত্রে ঔষধ ব্যবস্থার রেগুলেটরি প্রতিষ্ঠান ইউরোপিয়ান মেডিসিন এজেন্সির ফাইজার বায়োএনটেক , মডেরনা এবং সর্বশেষ যুক্তরাজ্যের অক্সফোর্ড এর উৎপাদিত এস্ত্রাজেনেকা ভ্যাকসিন অনুমোদন দিয়েছে।

 অন্যান্য সংবাদঃ

ইউরোপ বাংলা

ইউরোপ বাংলা

একজন ফ্রিল্যান্স রাইটার, ব্লগার, এডুকেশনাল কনসালট্যান্ট, ক্যারিয়ার কাউন্সিলর, উদ্যোক্তা।

Related Posts

Next Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

I agree to the Terms & Conditions and Privacy Policy.

ফেসবুকে ইউরোপ বাংলা