Friday, এপ্রিল ১২, ২০২৪

তাইওয়ানের আকাশসীমায় চীনের যুদ্ধবিমান

ইউরোপ বাংলা ডেস্ক : এবার তাইওয়ানের আকাশে চীনের ১২ যুদ্ধবিমান সামরিক কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে দেশটির প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়। সোমবার (২৯ আগস্ট) চীনের ১২টি যুদ্ধবিমান তাইওয়ানের মধ্যরেখা অতিক্রম করেছে বলে তাইওয়ানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় দাবি করেছে। মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির বিতর্কিত তাইওয়ান সফরের পর তাইওয়ান প্রণালীতে রবিবার (২৮ আগস্ট) দুই মার্কিন যুদ্ধজাহাজ প্রবেশ করে। এরপরই চীনের বিরুদ্ধে এই আকাশ সীমা লঙ্ঘনের অভিযোগ আনল তাইওয়ান। এদিকে, তাইওয়ান প্রণালীতে প্রবেশ করা দুই মার্কিন যুদ্ধজাহাজ নিয়ে রবিবার চীনের সেনাবাহিনী জানিয়েছে, তারা ওই যুদ্ধজাহাজ দুটি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে। বিষয়টি নিয়ে তারা উচ্চ সর্তকতা বজায় রেখেছে এবং যেকোনো উস্কানি মোকাবেলায় প্রস্তুত রয়েছে।

মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির বিতর্কিত তাইওয়ান সফরের চীনের কড়া প্রতিক্রিয়ার পর এই প্রথম মার্কিন যুদ্ধজাহাজ তাইওয়ান প্রণালীতে প্রবেশ করলো। জাপানে অবস্থিত মার্কিন সপ্তম নৌবহরের সদর দপ্তর থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়, গভীর সমুদ্রে জাহাজ চলাচলের আন্তর্জাতিক আইন অনুসারে তাইওয়ান প্রণালীতে এই যুদ্ধজাহাজ পাঠিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। আন্তর্জাতিক আইন অনুমোদন দিলে যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বের যেকোনো জায়গায় সামরিক বাহিনী এবং তাদের যুদ্ধজাহাজ পাঠাতে পারে।

তাইওয়ানকে চীন তার নিজস্ব ভূখণ্ড মনে করে এবং বিশ্বের বেশিরভাগ দেশ তাইওয়ান ইস্যুতে এক চীন নীতি মেনে চলে। চীন বারবার বলে আসছে- তারা মূল ভূখণ্ডের সঙ্গে তাইওয়ানকে যুক্ত করতে চায়, এজন্য প্রয়োজন হলে তারা শক্তি প্রয়োগ করবে। অন্যদিকে, যুক্তরাষ্ট্র এক চীন নীতি মেনে চললেও তাইওয়ানকে স্বাধীন ভূখণ্ড হিসেবে বিবেচনা করে।

Related Posts

Next Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

I agree to the Terms & Conditions and Privacy Policy.

ফেসবুকে ইউরোপ বাংলা