Tuesday, এপ্রিল ২৩, ২০২৪

১০ বছরে সিরিয়ায় ৩ লাখ মানুষের মৃত্যু: জাতিসংঘ

ইউরোপ বাংলা ডেস্ক : সিরিয়ায় চলমান গৃহযুদ্ধে ২০১১ সালের ১ মার্চ থেকে ২০২১ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত ৩ লাখ ৭ হাজার বেসামরিক লোকের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার জাতিসংঘের হিউম্যান রাইটস অফিস কর্তৃক প্রকাশিত এক প্রতিবেদন থেকে এমনটাই জানা গেছে। জাতিসংঘের মানবাধিকার সংক্রান্ত হাই কমিশনার মাইকেল বাচেলেট এ বিষয়ে বলেছেন, কঠোর মূল্যায়ন ও পরিসংখ্যানগত বিশ্লেষণের মাধ্যমে গেল ১০ বছরে সিরিয়ায় ৩ লাখ ৬ হাজার ৮৮৭ জন বেসামরিক লোকের মৃত্যুর তথ্য উঠে এসেছে। এটা কেবল একটা সংখ্যা না, তারা রক্ত-মাংসের মানুষ ছিলেন। এই ৩ লাখ ৬ হাজার ৮৮৭ জন মানুষের প্রত্যেক জনের মৃত্যুর ভয়ানক প্রভাব ছিল তাদের পরিবারের ওপর, তাদের কমিউনিটির ওপর।

৩ লাখ ৬ হাজার ৮৮৭ জনের মধ্যে ১ লাখ ৪৩ হাজার ৩৫০ জনের বিস্তারিত তথ্য পাওয়া গেছে। যেমন- তাদের পূর্ণ নাম, মৃত্যুর তারিখ, মৃত্যুর স্থান ইত্যাদি। বাকি ১ লাখ ৬৩ হাজার ৫৩৭ জনের তথ্য কঠোর মূল্যায়ন ও পরিসংখ্যানগত বিশ্লেষণের মাধ্যমে সংগ্রহ করা হয়েছে। এদিকে যুক্তরাজ্যভিত্তিক মানবাধিকার পর্যবেক্ষক সংস্থা সিরিয়ান অবজারভেটরি ফর হিউম্যান রাইটসের হিসাবে, ২০২১ সালের জুন পর্যন্ত সিরিয়া যুদ্ধে নিহতের সংখ্যা ৪ লাখ ৯৪ হাজার ছাড়িয়ে গেছে।

উল্লেখ্য, ২০১১ সালে সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদ বিরোধী এক বিক্ষোভের বিরুদ্ধে প্রাণঘাতী ব্যবস্থার নেয়ার মধ্য দিয়ে দেশটিতে যে সংঘাতের সূচনা হয় সেটিই পরে গৃহযুদ্ধে রূপ নেয়, যা এখনো চলছে। যুদ্ধ শুরুর আগে সিরিয়ার জনসংখ্যা ছিল ২ কোটি ২০ লাখ। তাদের অর্ধেকের বেশি যুদ্ধের কারণে উদ্বাস্তু হয়েছে। প্রায় ৭০ লাখ মানুষ ঘরবাড়ি হারিয়ে প্রাণ বাঁচাতে সিরিয়ার এক শহর থেকে অন্যত্র চলে গেছেন। প্রায় ২০ লাখ অসহায় মানুষের ঠিকানা হয়েছে বিভিন্ন শরণার্থীশিবির। এক সময়ের সমৃদ্ধ দেশটি পরিণত হয়েছে ধ্বংসস্তূপে।

Related Posts

Next Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

I agree to the Terms & Conditions and Privacy Policy.

ফেসবুকে ইউরোপ বাংলা