Friday, এপ্রিল ১২, ২০২৪

উয়েফা সুপার কাপের চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদ

ইউরোপ বাংলা ডেস্ক : প্রথমার্ধে এক গোলের পর দ্বিতীয়ার্ধে আরও এক গোল করে রিয়াল মাদ্রিদ। সুযোগ তৈরি করেও স্প্যানিশ ক্লাবটির রক্ষণ ভাঙতে পারেনি ফ্রাঙ্কফুর্ট। ম্যাচ জুড়ে আধিপত্য দেখিয়ে উয়েফা সুপার কাপের শিরোপা ঘরে তুলল রিয়াল মাদ্রিদ।

এক মৌসুমে সর্বোচ্চ ছয় শিরোপা জয়ের পথে এক ধাপ এগিয়ে গেল কার্লো আনচেলোত্তির দল।
বুধবার রাতে ফিনল্যান্ডের হেলসিনকি অলিম্পিক স্টেডিয়ামে ফ্রাঙ্কফুর্টকে ২-০ গোলে হারিয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। একটি করে গোল করেন ডেভিড আলাবা ও করিম বেনজিমা। এ নিয়ে পঞ্চমবারের মত উয়েফা সুপার কাপের শিরোপা জিতল রিয়াল মাদ্রিদ। এর আগে ২০০২, ২০১৪, ২০১৬ ও ২০১৭ সালে এই ট্রফি জিতে রিয়াল। গত মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগ জয়ী এবং ইউরোপা লিগ জয়ী দল নিয়ে উয়েফা সুপার কাপ আয়োজিত হয়।

গত মৌসুম যেখানে শেষ করেছিল ঠিক সেখান থেকেই যেনো শুরু করল রিয়াল মাদ্রিদ। লিভারপুলের বিপক্ষে চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালের সেই একাদশ নিয়েই আজ মাঠে নামে রিয়াল। প্রথমার্ধে রিয়াল দাপট দেখালেও প্রথম সুযোগ আসে ফ্রাঙ্কফুর্টের সামনে। ১৪ মিনিটে সুবর্ণ সুযোগ নষ্ট করে ফ্রাঙ্কফুর্টের দাইচি কামাদা। মাঝমাঠে ফেরলান্ড মেন্ডির কাছ থেকে বল কেড়ে থ্রু পাস বাড়ান রাফায়েল বোর। অফসাইড ফাঁদ ভেঙে বক্সের ভেতর থেকে কামাদার শট পোস্ট ছেড়ে বের হয়ে এসে আটকে দেন থিবো কোর্তুয়া।

তিন মিনিট বাদে ফ্রাঙ্কফুর্টের রক্ষণ কাঁপায় রিয়াল মাদ্রিদ। ডান প্রান্ত থেকে ফেদে ভালভারদের নিচু ক্রস বক্সের ভেতর পান করিম বেনজিমা। তার সামনে এক ডিফেন্ডার থাকায় বাঁ দিকে থাকা ভিনিসিয়ুস জুনিয়রের দিকে ঠেলে দেন বল। ব্রাজিলিয়ান এই ফরোয়ার্ডের শট স্লাইডিং শটে গোললাইনের উপর থেকে ফিরিয়ে দেন তুতা।

৩৭ মিনিটে এগিয়ে যায় রিয়াল মাদ্রিদ। কর্নার থেকে আসা বল বেনজিমার হেড ফ্রাঙ্কফুর্টের এক ডিফেন্ডারের মাথায় লেগে দিক বদলে গেলে টাচলাইনের উপর থেকে ক্যাসেমিরো বাড়িয়ে দেওয়া হেডে আলতো টোকায় জাল খুঁজে নেন ডেভিড আলাবা। এর ঠিক আগের আক্রমণেই ভিনিসিয়ুসের দারুণ শট বাম দিকে ঝাঁপিয়ে কর্নারের বিনিময়ে রক্ষা করেন কেভিন ট্র‍্যাপ। এই কর্নার থেকেই গোলের দেখা পায় রিয়াল মাদ্রিদ।

৪১ মিনিটে সুযোগ নষ্ট করেন বেনজিমা। টনি ক্রুসের পাসে বক্সের ভেতর থেকে বল লক্ষ্যে রাখতে পারেননি ফরাসি এই স্ট্রাইকার। দ্বিতীয়ার্ধেও আধিপত্য ধরে রাখে রিয়াল। এই অর্ধে প্রতিপক্ষকে কোনো সুযোগ দেয়নি ক্রুস-মদরিচরা। গোছানো ফুটবল খেলে ফ্রাঙ্কফুর্টকে চেপে ধরে রিয়াল।

৫৪ মিনিটে বক্সের ভেতর থেকে ভিনিসিয়ুসের শট আটকে দেন ট্র‍্যাপ। ৬১ মিনিটে বক্সের ওপর থেকে ক্যাসেমিরোর গতির শট ক্রসবারে লেগে প্রতিহত হয়। তবে চার মিনিট বাদে আর ভুল করেনি রিয়াল মাদ্রিদ। লস ব্লাংকোদের হয়ে ব্যবধান বাড়ান করিম বেনজিমা। বাম প্রান্ত দিয়ে বল নিয়ে বক্সে ঢুকে পড়েন ভিনিসিয়ুস জুনিয়র। বল বাড়িয়ে দেন ফাকায় থাকা বেনজিমার পায়ে, দেখে শুনে ডান পায়ের শটে লক্ষ্যভেদ করেন করিম বেনজিমা। এই গোলের মধ্যে দিয়ে রাউল গঞ্জালেসকে (৩২৩ গোল) টপকে এখন রিয়াল মাদ্রিদের ইতিহাসে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ গোলদাতা করিম বেনজিমা (৩২৪ গোল)।

Related Posts

Next Post

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

I agree to the Terms & Conditions and Privacy Policy.

ফেসবুকে ইউরোপ বাংলা